নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে রক্তাক্ত জখম হলেন তোফায়েল আহমেদ(৬০) নামের এক নির্মাণ শ্রমিক।আহত নির্মাণ শ্রমিক কানাইখালী মহল্লার মৃত হাবিবুল্লাহর ছেলে ছেলে।রবিবার বিকেলের দিকে এই আহতের ঘটনা ঘটে। আহত তোফায়েল আহমেদকে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তোফায়েল আহমেদের ছেলে রণি জানান,তার বাবা একজন নির্মাণ শ্রমিক।দুইবছর আগে কান্দিভিটা জোয়ার্দারপাড়া মহল্লার মৃত মুনছুর রহমানের ছেলে জামানের বাড়ি নির্মাণের চুক্তি হয়। সেই মোতাবেক তার বাবা জামানের বাড়ির কাজ যথাসময়ে সময়ে সম্পন্ন করেন।কিন্তু এরপর থেকে জামান পাওনা টাকা পরিশোধ করতে টালবাহানা করতে থাকে। বারবার তাগাদা দেওয়া সত্বেও তিনি টাকা পরিশোধ করতে অস্বীকার করে। এরপর তার বাবা জামানের বিরুদ্ধে জেলা নির্মাণ শ্রমিক অফিসে অভিযোগ করেন।জেলা নির্মাণ শ্রমিকের সভাপতি শহিদুল ইসলাম এ ব্যাপারে এক সালিশ বৈঠক ডাকলে সেখানে উপস্থিত হলেও সালিশ তার পক্ষে না যাওয়ায় জামান ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়।আজ আবার তার বাবা পাওনা টাকার জন্যে জামানের বাড়িতে গেলে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে জামান একটি লোহার রড দিয়ে পিটাতে থাকে এতে তার বাবা রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নাটোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শিকদার মশিউর রহমান জানান,এব্যাপারে তোফায়েলের ছেলে রণি বাদী হয়ে একটি প্রাণ নাশের চেষ্টার একটি মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ তদন্ত শেষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

অভিযুক্ত জামান জানান,তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ভিত্তিহীন। তিনি এঘটনার সাথে কোনভাবেই সম্পৃক্ত নন।

পরিতোষ অধিকারী

নাটোর

১১-০৬-১৮

একটি মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
আপনার নাম লিখুন